আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কামারখন্দে পাবলিক লাইব্রেরি থাকলেও নেই পাঠক

কামারখন্দ প্রতিনিধি :
বইয়ের সঙ্গে পাঠকের আত্মিক সম্পর্ক তৈরি করতে এক সময় তরুণদের অবসর সময় কাটত বই পড়ে। বই পড়া, খেলাধুলা, বিতর্কচর্চা, আবৃত্তি, সাহিত্যচর্চা, লেখালেখি, সংগঠনসহ নানা সৃজনশীল কাজ করার জন্য সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার পাবলিক লাইব্রেরি গড়ে তোলা হয়েছিলো। এতে বিভিন্ন শ্রেণির পাঠকের জন্য রয়েছে প্রায় ২ হাজারের মতো বই। তবে লাইব্রেরিতে এখন আর তেমন পাঠক দেখা যায় না। দীর্ঘদিন ধরে বইগুলোও পড়ে রয়েছে অবহেলায় ও অপাঠ্য অবস্থায়। লাইব্রেরির সংশ্লিষ্ট ও বইপ্রেমীরা জানায়, মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেটের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ার কারণে ছাপা হরফের বইয়ের প্রতি আগ্রহ হারিয়েছেন পাঠকরা। একটা সময় পাঠক সংখ্যা ছিলো প্রায় ১ হাজার ৬০০, বই সংখ্যা ছিলো প্রায় সাড়ে ৩ হাজার। বর্তমানে পাঠক সংখ্যা ৪০/৫০ জন তাও অনিয়ম আর বই সংখ্যা রয়েছে মাত্র ২ হাজার বই। এর মধ্যে রয়েছে গল্প, উপন্যাস, কবিতা, ধর্মীয় ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বই। অভিধানসহ ইংরেজি ভাষারও বেশ কিছু বই এখানে রয়েছে।

লাইব্রেরিয়ান আশিক সরকার বলেন, এখানে এক সঙ্গে ৫০ জন পাঠকের (শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত) নিরিবিলি পরিবেশে বসে বই পড়ার ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতিদিন বিকেল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত লাইব্রেরি খোলা থাকে। বইপ্রেমিক ইমরান হুসাইন বলেন, একজন শিক্ষিত মানুষের কাছে বইয়ের গুরুত্ব অপরিসীম। বই চিন্তার খোরাক যোগায়। যেখানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চিন্তার খোরাক খুই কম। তাই বই পড়ার কোনও বিকল্প নেই। তবে পাঠক বাড়ানোর জন্য বই পড়ার প্রতিযোগিতার ও পুরস্কারের ব্যবস্থা করতে হবে। কামারখন্দ পাবলিক লাইব্রেরির সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া বলেন, পাঠ্য বইয়ের বাইরে অন্য বই পড়ার প্রবনতা কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ হলো স্মার্ট ফোন ও ইন্টারনেটের সহজলভ্যতা। ‘বর্তমানে স্কুল পড়ুয়া স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ প্রায় সব ধরনের মানুষের হাতে ইন্টারনেট সংযোগসহ স্মার্টফোন রয়েছে। এরাই মূলত গ্রন্থাগারের পাঠক ছিল। তবে এখন তারা ইন্টারনেটের দুনিয়াতেই বেশি সময় কাটান।’ কামারখন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও (পাবলিক লাইব্রেরির সভাপতি) মেরিনা সুলতানা বলেন, করোনার জন্যই লাইব্রেরিতে পাঠক কমে গেছে। তবে পাঠকদেরকে ফিরে আনার জন্য বই পড়া প্রতিযোগিতা, বির্তক প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন জ্ঞানমূলক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হবে।

 

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী

error: Content is protected !!