আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চৌহালীতে আধুনিক প্রযুক্তিতেদেশি মাছ চাষ

চৌহালী সংবাদদাতা :
হারিয়ে যাওয়া দেশি মাছ চাষ করা হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তিতে। প্রতিটি ইউনিয়নে প্রদর্শনী পুকুরে চাষিদের উদ্বুদ্ধ করে এসব মাছ চাষ করে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা। ফলে চাষিরা মাছ বাজারে ওঠায় কম দামে আমিষের চাহিদা পূরণ হচ্ছে মানুষের। সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে ৭টি ইউনিয়ন পর্যায়ে ২৭৩টি পুকুরে এই পদ্ধতিতে মাছ চাষ করা হচ্ছে। এর মধ্যে পাঁচটি ইউনিয়নে ১২টি পুকুরে প্রকল্পের আওতায় মাছ চাষ করা হচ্ছে। এসব পুকুরে রুই, শিং, মাগুর, পাবদা, গুলশা ইত্যাদি মাছের চাষ হচ্ছে। চৌহালী উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোনোয়ার হোসেন জানান, মাঠপর্যায়ে চাষি ও পুকুর নির্বাচন করে মাছ চাষের জন্য তৈরি করা হয়। চাষিদের পোনা মাছ ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়।

একজন চাষিকে এসব সুবিধা দিয়ে আরও পাঁচজন বন্ধু চাষি নির্বাচন করা হয়। যাতে তারা উদ্বুদ্ধ হয়ে মাছ চাষে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। এ জন্য সবাইকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।এসব পুকুর সার্বক্ষণিক দেখভাল করার জন্য রয়েছে একজন লিফম্যান। ছোটখাটো সমস্যা হলে সমাধান করেন।ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবাপুকুরে দেশি মাছ আধুনিক প্রযুক্তিতে চাষ করা হচ্ছে। এই চাষিরা আগ্রহ নিয়ে এসব মাছের চাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন আর বর্তমানে পুকুরে প্রত্যেকটি মাছ ৫০০-৭০০ গ্রামে হচ্ছে।খাষকাউলিয়া ইউনিয়নের মাছচাষি আমির কাজী জানান, তিনি ৪০ শতক পুকুরে শিং, মাগুর ও অন্যান্য মাছের চাষ করেছেন।

মাত্র কয়েক মাসে মাছ খাবার উপযোগী হয়েছে। তিনি আশা করছেন পুকুরে ৩০০ কেজি মাছ উৎপাদিত হবে, যা বর্তমান বাজারমূল্যে বিক্রি হবে। এতে খরচ বাদে তার এক লাখটাকা লাভ থাকবে। এসব দেখে এলাকার অন্যান্য চাষিও মাছ চাষে এগিয়ে আসছেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মৎস্য অফিসের সিনিয়র ক্ষেত্র সহকারী শফিকুল ইসলামশফিক ও ক্ষেত্রসহকারী আব্দুল্লাহ-আল মুতিসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী

error: Content is protected !!