আজ ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পৌনে ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সিরাজগঞ্জে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণ ॥ সুফলভোগীদের হাসি

বিশেষ প্রতিবেদক :

মুজিববর্ষ উপলক্ষে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ভুমিহীন ও গৃহহীন মানুষের জন্য প্রায় পৌনে ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৩৭২টি সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। এসব নির্মিত ঘরে ইতিমধ্যেই অনেক সুফলভোগী বসবাস শুরু করেছে। এতে গৃহহীন পরিবারগুলোর মুখে হাসি ফুটেছে। আশ্রয়নের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার’ এ শ্লোগানে সাড়া পড়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত অর্থ বছরে প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে ৮টি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে সরকারি খাঁস সম্পত্তিতে ৬ কোটি ৬৭ লাখ ৭ হাজার টাকা ব্যয়ে এ আশ্রয়ন প্রকল্পের ৩৭২টি ঘর নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এ উপজেলার বৃহত্তর এ আশ্রয়ন প্রকল্পটি রয়েছে খোকশাবাড়ী ইউনিয়নের খোকশাবাড়ীতে। এখানে নির্মাণ করা হয়েছে ২২০টি সেমিপাকা ঘর।

এছাড়া সয়দাবাদ, বহুলী, শিয়ালকোল, রতনকান্দি, কালিয়া হরিপুর, বাগবাটি ও ছোনগাছা ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে ১৫২টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। সরকারি বিধিমতে এ আশ্রয়ণ প্রকল্প বাস্তবায়নে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি কাজ করেছেন।

তারা হলেন, এ কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সদস্য সচিব উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, সদস্য উপজেলা এসিল্যান্ড, উপজেলা প্রকৌশলী ও সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান। খোকশাবাড়ী আশ্রয়ন প্রকল্পে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে সরজমিনে গিয়ে সুফলভোগীদের মুখে অনেকটা হাসির দৃশ্য মিলেছে।

এ আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসকারী সাহেরা বেগম (৪৫), মাধুরী রাণী (৪৭), শিল্পী গোবিন্দ (২৫), সাহেরা বানুসহ (৬৬) অনেকেই বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মায়ের মতো। তাঁর জন্যই আজ আমরা মাথা গোঁজার ঠাই পেয়েছি। এজন্য তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

এ প্রকল্পের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আনোয়ার পারভেজ বলেন, জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহম্মেদের দিক নির্দেশনা ও অনান্য কর্মকর্তাদের সহযোগীতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করা হয়েছে। তবে খোকশাবাড়ি আশ্রয়ন প্রকল্পে খেলার মাঠ, মসজিদ ও স্কুল স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়া ওই প্রকল্পের উত্তরপার্শ্বে একটি গোলঘর নির্মাণের কাজ চলছে। প্রধানমন্ত্রী ২০ জুন ভার্চ্যুয়ালের মাধ্যমে সারাদেশের ন্যায় এ আশ্রয়ন প্রকল্পের ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে ঘর হস্তান্তর করেছেন।

এ প্রকল্পের সদস্য সচিব উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইদুল হক বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সহযোগীতায় অক্লান্ত পরিশ্রম করে এ প্রকল্প সমাপ্তি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই অনেক সুফলভোগী বসবাসও শুরু করেছেন। আগামী ২/১ সপ্তাহের মধ্যেই এ আশ্রয়ন প্রকল্পের নির্ধারিত সুফলভোগীরা তাদের ঘরে উঠবেন।

এ প্রতিবেদকের এক প্রশ্নাত্তরে তিনি বলেন, এ আশ্রয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে কোন অনিয়ম দূর্নীতির প্রশ্নই ওঠে না বলে তিনি উল্লেখ করেন।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী

error: Content is protected !!