আজ ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জের কামার পল্লীতে নেই তেমন ব্যস্ততা

সাকলাইন শিহাব

আর মাত্র সাপ্তাহ খানেক পরই কোরবানীর ঈদ। ঈদকে সামনে রেখে প্রতিবছর এসময়ে টুংটাং শব্দে মুখরিত হতো কামারপট্টি গুলো। ব্যাস্ততা বেড়ে যেত সিরাজগঞ্জের কামার পট্টি গুলোতে।কিন্তু এবারের কামার পট্টি গুলোর অবস্থা একেবারে ভিন্ন। যেখানে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত টুংটাং শব্দ লেগেই থাকতো। বর্তমানে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে ও সরকারের কঠোর লকডাউনে মধ্যে ক্রেতা পাওয়া নিয়ে সংশয়ে রয়েছেন কামাররা।

সিরাজগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র বাহিরগোলা রোড এলাকা,কালী বাড়ি বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় রয়েছে কামারশালা। প্রত্যেক বছর সেখানে কামাররা দা, ছুরি, কোপতাসহ বিভিন্ন ধরনের যন্ত্রপাতি তৈরির কাজ করতেন। ঈদুল আযহা সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করতেন কামাররা। কিন্তু এবারের চিত্র পুরোপুরি ভিন্ন।তেমন চাহিদা না থাকায় শুনশান নিরবতা বিরাজ করছে কামার দোকান গুলোতে।

সিরাজগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র বাহিরগোলা রোড এলাকা বিষ্ণু কর্মকার জানান, ৮বছর ধরে তিনি এই পেশায় নিয়োজিত আছেন। প্রত্যেক কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে তাদের ব্যস্ততা ছিল অনেক।তবে এ বছর ব্যবসার সময়টাতে লকডাউন। ঈদ আসলে তাদের কাজের অনেক চাপ থাকতো, কিন্তু এবার তাদের তেমন কাজ নেই।

তিনি আরো বলেন, ঈদের এক মাস আগে থেকেই দা, ছুরি, বটি, চাপাতিসহ নানা হাতিয়ার তৈরি করা শুরু হতো।ভালোভাবে চলতো তাদের সংসার।তবে বর্তমানে তেমন কাজ না থাকায় সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে এই ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের।

বাহিরগোলা রোড এলাকা সুবল কর্মকার জানান, জন্মের পর থেকে এ পেশায় নিয়োজিত তিনি।প্রত্যেক বছর থেকে এবছরে কাজ অনেক কম।বর্তমানের লকডাউন থাকার কারণে কেউ বাইরে যেতে পারছে এবং গরু কিনতে পারছেন না।গরুর হাট গুলো খুললে সবাই গরু কিনবে,তখন হয়তো আমাদের কাজ বাড়তে পারে।

তিনি আরো বলেন, দা ও বটি বানাতে ৫০০, বড় ছুরি ৬০০ টাকা, শান দেওয়ার মজুরি প্রকার ভেদে ৮০ ও ১০০টাকা নেয়া হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে আছেন কামারীরা। পরিস্থিতির উপর নির্ভর করছে পশু কেনাবেচা। গরু কেনা বেচা শুরু হলে ব্যস্ততা বাড়তে পারে সিরাজগঞ্জের কামারপট্টি গুলো। তবে লকডাউন শিথিল হলে বেচাকেনা শুরু হতে পারে বলে মনে করেন কামারীরা।

বর্তমান পরিস্থিতিতে সরকারের সহযোগিতা কামনা করছেন কামাররা।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী

error: Content is protected !!