আজ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

উল্লাপাড়া সরকারি গুদামে ধান বিক্রি করতে আগ্রহ কম কৃষকের

সাহারুল হক সাচ্চু
উল্লাপাড়া সরকারি গুদামে ধান বিক্রি করতে আগ্রহী হচ্ছেন না উল্লাপাড়ার কৃষকরা। এলাকার হাটগুলোতে সরকারি দামের চেয়ে কেজি প্রতি ১-২ টাকা বেশি দামে ধান বিক্রি করতে পারায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
উপজেলা খাদ্য বিভাগ ও খাদ্য গুদাম অফিস সুত্রে জানা যায়, গত ৩৭ দিনে ৭শ’ ৪১ মেট্রিক টন বোরো ধান ক্রয় করা হয়েছে। ধান ক্রয়ের সরকারি লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ৪হাজার ১শ’ ৬৫ মেট্রিক টন। এদিকে, ২৫ দিনে ৯শ’ ৬৩ মেট্রিক টন ক্রয় করা হয়েছে। এবারের মওসুমে উল্লাপাড়া উপজেলায় সরকারিভাবে ৪ হাজার ১শ’ ৬৫ মেট্রিক টন বোরো ধান ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। প্রতি কেজি ধানের দর বেধে দেয়া আছে ২৭ টাকা। সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয় হবে এবং একজন কৃষক সর্বোচ্চ তিন মেট্রিক টন ধান বিক্রি করতে পারবেন। এদিকে, এবারের মওসুমে ২ হাজার ৬শ’ ৫৭ মেট্রিক টন চাউল সংগ্রহের সরকারি লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। প্রতি কেজি চাউলের দর ৪০ টাকা এবং চাউল সংগ্রহে মোট ৭৩ জন মিলার চুক্তি করেছেন। গত ২৮ এপ্রিল ধান ও ৯ মে চাউল ক্রয় সংগ্রহের কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে। আগামী ১৬ আগষ্ট ধান ও চাউল ক্রয় সংগ্রহের শেষ দিন। বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের কৃষকদের কাছ থেকে মোট ৭শ’ ৪১ মেট্রিক টন ধান ক্রয় সংগ্রহ হয়েছে।
সরেজমিনে খাদ্য গুদামে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার কুমারগাতী গ্রামের কৃষক রাশেদুল ইসলাম দেড় মেট্রিক টন ও বোয়ালিয়া দক্ষিনপাড়া গ্রামের কৃষক আনছারুল ইসলাম দেড় মেট্রিক টন ধান বিক্রি করতে গুদামে এনেছেন। প্রতিবেদককে তারা জানান, নিজেদের আবাদের বোরো ধান বিক্রি করলেন তারা। এছাড়া, বিভিন্ন গ্রামের তিনজন কৃষক ধান গুদামে এসেছেন বিক্রি করতে।
তারা জানান, এলাকার হাটগুলোতে সরকারি দামের চেয়ে কেজি প্রতি ১-২ টাকা বেশি দামে ধান কেনাবেচা হচ্ছে। যে কারণে কৃষকেরা সরকারি গুদামে ধান বিক্রি না করে হাটে বিক্রি করতেই বেশি আগ্রহী হচ্ছেন। উপজেলা ভারপ্রাপ্ত খাদ্য গুদাম কর্মকতা রাশেদুল ইসলাম বলেন, ধান বিক্রি করতে আসা কৃষকের সংখ্যা খুবই কম। ধান বিক্রি করতে আসা কৃষকদের মাধ্যমে অন্য কৃষকদের সরকারি খ্যাদ্য গুদামে ধান বিক্রি করার জন্য বলা হচ্ছে। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নিয়ামুল হক জানান, সরকারি খাদ্য গুদামে ধান বিক্রি বাড়াতে ইউপি চেয়ারম্যানগণের মাধ্যমেও উদ্বুদ্ধ করার চেষ্টা চলছে।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর...

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী

error: Content is protected !!